Monday, July 21, 2014

ব্র্যাড অ্যাডামস, এইবার ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রীকে একটা চিঠি লিখুন

বাংলাদেশের আইনশৃঙ্খলা রক্ষার জন্যে গঠিত 'এলিট ফোর্স' র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটেলিয়ন ওরফে র‍্যাব ভেঙে দেওয়ার জন্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে চিঠি লিখেছেন হিউম্যান রাইটস ওয়াচ নামের একটি মৌসুমী মানবাধিকারবারি সংগঠনের এশিয়া অঞ্চলের প্রধান, ব্র্যাড অ্যাডামস [সূত্র]।
র‍্যাব নিয়ে ব্র্যাড অ্যাডামসের উদ্বেগের অন্ত নেই। সে উদ্বেগের পেছনে উপস্থাপনীয় কারণেরও অভাব নেই। র‍্যাবের হাতে নিরপরাধ ব্যক্তির আহত ও নিহত হওয়ার খবর নতুন কিছু নয়। অপরাধীও যদি উপযুক্ত বিচার প্রক্রিয়া থেকে বঞ্চিত হয়ে নিরস্ত্র অবস্থায় র‍্যাবের হাতে নিহত হয়ে থাকে, তা আইনের চোখে হত্যা হিসেবেই পরিগণিত হওয়ার কথা।
ব্র্যাড অ্যাডামস লিখেছেন,
স্বাধীন আন্তর্জাতিক সংস্থাগুলোর হিসাব অনুযায়ী, গত ১০ বছরে প্রায় ৮০০ হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় র‌্যাব দায়ী।
তারপর তিনি আরো লিখেছেন,
র‌্যাবকে এখন আর সংস্কার করে চালানো সম্ভব বলে আমরা বিশ্বাস করি না। আইনের ঊর্ধ্বে থেকে কোনো ধরনের জবাবদিহিতার তোয়াক্কা না করে র‌্যাব পরিচালনার একটি সংস্কৃতি তৈরি হয়ে গেছে। এই অবস্থায় এ বাহিনীকে অবশ্যই বিলুপ্ত করতে হবে, যাতে হত্যাকাণ্ড বন্ধ করা হয়।
মানবাধিকারবারি ব্র্যাড অ্যাডামসের উদ্বেগের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে এবার একটা ছোটো আবদার করি। প্যাড থেকে আরেকটা কাগজ ছিঁড়ুন। কলমদানি থেকে কলমটা বের করে খাপ খুলুন। তারপর লিখুন ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রীকে। তাকে বলুন, ইসরায়েল ডিফেন্স ফোর্সেস প্রতিষ্ঠানটিকেও বিলুপ্ত করে দিতে। ২০০০ সাল থেকে ২০১২ সাল পর্যন্ত ইসরায়েল ডিফেন্স ফোর্সেসের হাতে নিহত ফিলিস্তিনিদের একটি পরিসংখ্যান পাবেন এখানে। এদের মাঝে একটি বড় অংশ নিরীহ বেসামরিক মানুষ, তাদের একটা বড় অংশ শিশু, এবং সংখ্যাটাও ৮০০ থেকে বেশি।
আমি নিশ্চিত, আপনি বিশ্বাস করেন না যে ইসরায়েল ডিফেন্স ফোর্সেসকে সংস্কার করে চালানো সম্ভব। কাজেই ফিলিস্তিনে নির্বিচার হত্যাকাণ্ড বন্ধ করার জন্য যে এই বাহিনীকে বিলুপ্ত করার অনুরোধ আপনি ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রীকে করবেন, সেরকম তো আমরা ধরে নিতেই পারি। নাকি?
কবে আপনি ঐ চিঠিটি লিখবেন, দেখার জন্যে সাগ্রহে অপেক্ষা করছি। আপনার মানবাধিকার ব্যবসার দৌড় কতদূর পর্যন্ত, সেটাও দ্রষ্টব্য।

No comments:

Post a Comment

রয়েসয়েব্লগে মন্তব্য রেখে যাবার জন্যে ধন্যবাদ। আপনার মন্তব্য মডারেশন প্রক্রিয়ার ভেতর দিয়ে যাবে। এর পীড়া আপনার সাথে আমিও ভাগ করে নিলাম।