Wednesday, March 19, 2014

কর্মসংস্থানে বাংলার উপযোগ

পৃথিবী আজ গতকালের চেয়েও একটু বেশি পরস্পর-সংযুক্ত।
অতীতের যে কোনো সময়ের চেয়ে পৃথিবীর এক প্রান্ত আজ অন্য প্রান্তের সংস্পর্শে বেশি আসছে। আর এই বর্ধিত যোগাযোগের যুগে অন্যতম অস্ত্র ভাষা।
উপনিবেশ ও সাম্রাজ্যবিস্তারের সূত্রে পৃথিবীতে ইংরেজি, ফরাসি, স্প্যানিশ ও আরবি ভাষা বহুলকথিত। আমাদের দেশে বাংলা মাতৃভাষা হলেও উচ্চশিক্ষার মাধ্যম এখনও ইংরেজি। এর ভালো-খারাপ দুটি দিকই আছে নিশ্চয়ই।
কিন্তু কর্মসংস্থানের ক্ষেত্রে ভাষা নিজের দেশের নাগরিকের জন্যে সুযোগ সৃষ্টির অনেক অস্ত্রের একটি। জার্মানিতে সাধারণত জনগণের অর্থে চালিত প্রকল্পের জন্যে যেসব দরপত্র আহ্বান করা হয়, সেখানে কার্যাদেশদাতার সঙ্গে বিভিন্ন স্তরে যোগাযোগের জন্যে জার্মান ভাষাকে আলাদা ধারায় নির্দিষ্ট করা থাকে। ভিনদেশী প্রতিষ্ঠানের সেসব দরপত্রে অংশগ্রহণে কোনো বাধা নেই, কিন্তু কাজ চালিয়ে নিতে গেলে তাদের অবশ্যই সে কাজের বিভিন্ন স্তরে জার্মান ভাষায় পারদর্শী জনবল নিয়োগ করতে হবে।
খুবই ছোটো একটি বিধি, কিন্তু এর প্রভাব অনেক। ভিনদেশী পেশাজীবীরা জার্মানের মতো খটমটে একটি ভাষা নতুন করে শিখে কাজ চালিয়ে নেওয়ার চেয়ে প্রকল্পের বিভিন্ন অংশে অন্তত একজন জার্মানকে নিয়োগ দিলে কাজ সহজে সমাধা করতে পারবেন। এতে করে শুধু যে কর্মসংস্থানের পরিধি বর্ধিত হচ্ছে, তা-ই নয়, দুটি ভিন্ন কর্মসংস্কৃতির মানুষ একে অপর সম্পর্কে জানতে পারছে, যার মূল্য অনেক।
বাংলাদেশে আন্তর্জাতিক দরপত্র প্রায়ই ডাকা হয়, সেসব প্রকল্পে বেশিরভাগ সময় কায়িক অদক্ষ পরিশ্রমের কাজগুলো কেবল বাংলাদেশীদের জন্যে বরাদ্দ থাকে। এমনকি দরপত্রে যোগাযোগের ভাষা হিসেবেও ইংরেজিকে আলাদা ধারায় নির্দিষ্ট করা থাকে। এতে করে ব্যবস্থাপনার মাঝারি পর্যায়ের কাজে বাংলাদেশীদের নিয়োগের সুযোগ সীমিত ও অনিশ্চিত থাকে, কিংবা সে সুযোগকে সরকারের কর্তাব্যক্তিদের ইচ্ছায় সীমিত ও অনিশ্চিত করে রাখা হয়।
আমরা যেহেতু ক্রমশ আত্মমর্যাদা নিয়ে সচেতন হচ্ছি, এবং এই আত্মমর্যাদার প্রকাশেও সমর্থ হচ্ছি, অনাগত দিনে আন্তর্জাতিক দরপত্রে কার্যাদেশদাতার সঙ্গে বিভিন্ন স্তরে যোগাযোগ ও দলিল সংরক্ষণের ভাষা হিসেবে বাংলা এবং কেবল বাংলাকে অন্তর্ভুক্ত করা হোক। এতে করে বাংলাদেশীদের কাজের সুযোগ যেমন বিস্তৃত হবে, জ্ঞান স্থানান্তরের প্রথম ধাপটি সম্পন্ন হবে, আর বাইরের পৃথিবীর কাছেও আমরা আত্মসচেতন জাতি হিসেবে পরিচিত হবো।

No comments:

Post a Comment

রয়েসয়েব্লগে মন্তব্য রেখে যাবার জন্যে ধন্যবাদ। আপনার মন্তব্য মডারেশন প্রক্রিয়ার ভেতর দিয়ে যাবে। এর পীড়া আপনার সাথে আমিও ভাগ করে নিলাম।