Sunday, January 09, 2011

আমাদের গণমাধ্যমের ভারতীয় চলচ্চিত্রপ্রীতি

পত্রিকার উপসম্পাদকীয় পাতায় নানা লোকে মাঝেমধ্যে শিলপো সমোসকৃতি নিয়ে বক্তৃতার তুবড়ি ছোটাতে থাকে। এই পাতার লেখকদের সঙ্গে পত্রিকার বিনোদন পাতার বিভাগীয় সম্পাদকদের সম্ভবত কোনো যোগাযোগ নেই। পৃষ্ঠা ওলটালেই বিনোদন পাতায় চোখে পড়ে অন্য দৃশ্য। সেখানে সারি বেঁধে ভারতীয় অনুষ্ঠানের চকচকে তালিকা ঝুলিয়ে রাখেন বিভাগীয় সম্পাদক মহাশয়।

তিনি বলতে পারেন, লোকে দেখে বলেই তো তিনি ঝোলাচ্ছেন। তিনি ঝোলানো বন্ধ করে দিলে অন্য কেউ ঝোলাবে। ইত্যাদি ইত্যাদি। প্রশ্নটাও সেখানেই আসে, পত্রিকার কি কোনো দায়িত্ব নেই জনমানস নির্মাণে? লোকে তো পর্নোগ্রাফিও দেখে। পত্রিকা কি তাহলে পর্নো ছবিও টাঙাবে বিনোদন পাতায়?

এ নিয়ে পরে আরো বিস্তারিত লিখবো। আপাতত পত্রিকাগুলোর এই গোমূর্খ বিনোদন পাতার সম্পাদকদের অতুল কীর্তির নমুনাগুলো জড়ো করি। কেউ যদি নমুনা যুগিয়ে সহায়তা করেন, উপকৃত হবো। ধন্যবাদ।



প্রথম আলো



কালের কণ্ঠ




সমকাল


যুগান্তর


সংবাদ


ইত্তেফাক


নয়া দিগন্ত


আমাদের সময়

2 comments:

  1. আরে মশাই, এতে ট্যাঁকের খেল আছে| আর পর্নো তো সবাই হাতের কাছে সবসময় পায় না, তাই এগুলোরও সদ্বব্যবহার মাঝে মধ্যে হয় বইকি...

    ReplyDelete
  2. হে হে , বাজার এর প্রবাহ দেখে ব্যাজার হলে কি হয় ?
    এই দিকে ও হাড়ি,এন্টেনা বসিয়ে বি টিভি দেখা হতো,ভালো জিনিস বানালে খারাপ পালাতে পথ পায় না
    সেই সব ভালো নাটক আর শো গুলো হয় না কেন ?

    ReplyDelete

রয়েসয়েব্লগে মন্তব্য রেখে যাবার জন্যে ধন্যবাদ। আপনার মন্তব্য মডারেশন প্রক্রিয়ার ভেতর দিয়ে যাবে। এর পীড়া আপনার সাথে আমিও ভাগ করে নিলাম।