Wednesday, January 27, 2010

বাংলা একাডেমীর কাছে আমার চাওয়া

পূজ্যপাদ একাডেমী,

সবচেয়ে শুরুতেই আমি আপনার কাছে যা চাই, তা হচ্ছে আপনি আপনার ওয়েবসাইটটাকে সাইজ করবেন। ইউনিকোড বাংলায় সুন্দর, ছিমছাম একটা ওয়েবসাইট তৈরি করবেন। যদি না পারেন, আমাদের সাথে যোগাযোগ করতে পারেন। আমরা সাহায্য করতে পারি। ইউনিকোড বাংলায় একটা সাইট কেমন দেখায়, জানতে চাইলে ভিজিট করুন ডাব্লিউ ডাব্লিউ ডাব্লিউ ডট সচলায়তন ডট কম।

বাংলা বানান সম্পর্কিত যে প্রমিত রীতি আপনারা প্রচলন করেছেন, সেটি এই ওয়েবসাইটে অনুগ্রহ করে পরিষ্কার বাংলায় লিপিবদ্ধ করুন, এ-ই আমার চাওয়া। পাশাপাশি মহেঞ্জোদোড়োর লিপিতে যা যা কিছু বর্তমান ওয়েবসাইটে লিখে রেখেছেন, সেগুলোও লেখা থাকতে পারে, আমার আপত্তি নাই।

আরো যা চাই, তা হচ্ছে বইমেলা নিয়ে একটা পৃথক, নিবেদিত ওয়েবসাইট আপনারা বাংলায় নির্মাণ করবেন বা করাবেন। এই ওয়েবসাইটে থাকবে প্রচুর তথ্য। আলুর ব্যাপারীর মতো অমুক সালের বইমেলায় অত কোটি টাকার বই বিক্রি হয়েছিলো গোছের বিবৃতি না, আমরা জানতে চাই কোন বই কত কপি বিক্রি হয়েছিলো, মেলায় কী কী নতুন বই এলো, সেসব বইয়ের লেখক কারা, প্রকাশক কারা, প্রচ্ছদকার কারা, কোন বই কত পৃষ্ঠা কত দাম, বইয়ের সামারি, একেবারে হদ্দমুদ্দ তথ্য।

কেন এমন একটা ওয়েবসাইট প্রয়োজন, এ প্রশ্ন জিজ্ঞাসা করে জাতিকে আর লজ্জিত করবেন না। ২০১০ সালে এ প্রশ্ন মানায় কেবল অশিক্ষিতের মুখে। বাংলা একাডেমী শুধু বইমেলার আয়োজকই নয়, বইমেলা সম্পর্কিত যাবতীয় তথ্যের ধারকবাহকরক্ষকঅভিভাবকপরিবেশকও বটে। এই দায়িত্ব নিতে অপারগ হলে আপনারা এই দায়িত্ব পালনে অযোগ্য, এমনটাই প্রতীয়মান হয়। বইমেলা বাঙালির বৃহত্তম জনসমাগম, একে নিয়ে তথ্য সংগ্রহ ও পরিবেশন চলছে না, এমনটাই বরং এক পরমাশ্চর্যের বিষয়। আমরা তো হটেনটট নই, তাই না?

আপাতত চাওয়া সামান্য। ভবিষ্যতে আরো অনেক কিছু চাইবো। এই সামান্য চাওয়া পূরণ করতে পারলে লোকে আপনাদের একবিংশ শতাব্দীর উপযোগী একটি প্রতিষ্ঠান বলে মনে করবে। প্রাগৈতিহাসিক থেকে যেতে চাইলেও পারা যায় না, যেমনটা নিয়ান্ডার্টালরা পারেনি।

আপনার চরণপদ্মে অর্বুদ প্রণামান্তে,

ভবদীয়
হিমু

No comments:

Post a Comment

রয়েসয়েব্লগে মন্তব্য রেখে যাবার জন্যে ধন্যবাদ। আপনার মন্তব্য মডারেশন প্রক্রিয়ার ভেতর দিয়ে যাবে। এর পীড়া আপনার সাথে আমিও ভাগ করে নিলাম।