Thursday, February 19, 2009

পুলিশ কেন জাপটে ধরবে?

প্রথম আলোতে পড়লাম, ভৈরবে এক দুর্ধর্ষ সন্ত্রাসী সদলবলে আধ ঘন্টার ব্যবধানে এক উপপরিদর্শককে হত্যা আর চার কনস্টেবলকে আহত করেছে ছুরি মেরে।

সাদা পোশাকে প্রথমে দুই কনস্টেবল আক্রান্ত হয় সন্ত্রাসী মামুনের হাতে। পরবর্তীতে এই সন্ত্রাসীকে পাকড়াও করতে গিয়ে জাপটে ধরে এস আই মোস্তাফিজসহ আরো কয়েকজন কনস্টেবল। মামুন আগের মতোই ছুরি মেরে তাদের দফারফা করে। এবার তার সাথে যোগ দেয় তার সাঙ্গোপাঙ্গোরা।

আমি অতীতে আরো বহুবার পুলিশের এই "জাপটে" ধরতে গিয়ে আক্রান্ত হবার কথা পড়েছি। পুলিশ সন্ত্রাসীকে জাপটে ধরতে গুলি খেয়েছে, ছুরি খেয়েছে, একবার কতগুলি চীনা বখাটে এই জাপটে ধরতে আসা পুলিশকে কুংফু মেরে পর্যন্ত ধরাশায়ী করেছে।

পুলিশ কেন জাপটে ধরবে? একজন উপপরিদর্শকের কি কোন হ্যান্ডগান নেই? সন্দেহভাজন একজন সন্ত্রাসী, যে কি না কিছুক্ষণ আগে দুই সহকর্মীকে ছুরি মেরে ঘায়েল করেছে, তাকে কেন জাপটে ধরার চেষ্টা করা হবে? মামুন বদমাইশটাকে কি মাটিতে লম্বা হয়ে শুয়ে পড়তে বলা যেতো না? তেড়িবেড়ি করলে কি তাকে আহত করার উদ্দেশ্যে গুলি করা যেতো না?

আমি এই ঘটনায় মর্মাহত। নিহত পুলিশ অফিসারের স্ত্রীপুত্রকন্যাদের প্রতি শুধু অসহায় সমবেদনা জানাই। আর পুলিশকে এ ধরনের সন্ত্রাসী আক্রমণ মোকাবেলার আরো উন্নত প্রশিক্ষণ দেয়ার দাবি জানাই। বছরের পর বছর পুলিশ শুধু সন্ত্রাসীকে জাপটে ধরে কাবু করতে যাবে, এ কেমন কথা? পুলিশের বুলেট ক্রয় বাবদ কি কম টাকা বরাদ্দ করা হয়?

পুলিশের সাথে সন্ত্রাসীর জাপটাজাপটি কোন শুভ ফল বয়ে আনতে পারে না। এ কথা পুলিশকে উপলব্ধি করতে হবে।

No comments:

Post a Comment

রয়েসয়েব্লগে মন্তব্য রেখে যাবার জন্যে ধন্যবাদ। আপনার মন্তব্য মডারেশন প্রক্রিয়ার ভেতর দিয়ে যাবে। এর পীড়া আপনার সাথে আমিও ভাগ করে নিলাম।