Tuesday, October 07, 2008

বিল মার



বিল মার এর বিশদ পরিচয় জেনে নিতে পারেন উইকিপিডিয়া থেকে। আমি তাকে চিনি এইচবিও-র জনপ্রিয় পলিটিক্যাল টক শো "রিয়্যাল টাইম" দেখার সূত্রে।

বিল মার রিপাবলিকানবিরোধী শিবিরের লোক। বুশ প্রশাসন এবং সম্প্রতি জন ম্যাকেইন-সারা প্যালিন জুটিকে গত কয়েকবছর ধরে নির্মমভাবে পঁচিয়ে আসছেন মার। তবে ডেমোক্র্যাটরাও তাঁর বিদ্রুপের হাত থেকে রেহাই পাচ্ছে, এমনটা বলা যাবে না।

মার সংঘবদ্ধ ধর্মচক্রের কঠোর বিরোধী, একই সাথে গাঁজা ও সমকামী বিবাহকে আইনী স্বীকৃতি প্রদানের পক্ষে তিনি। তার স্ট্যান্ড-আপ কমেডি এবং তার পলিটিক্যাল টক শোগুলোতে এই বিষয়গুলি উঠে আসে ঘনঘন। পলিটিক্যালি ইনকারেক্ট নামে আরেকটি টক শো তিনি উপস্থাপনা করতেন, ইউটিউবের কল্যাণে সেগুলিরও কয়েকটি পর্ব দেখলাম।

কিন্তু রিয়্যাল টাইমের শেষাংশটি দুর্ধর্ষ। "নিউ রুলস" বলে একটি সমাপনী অংশ সেখানে মার পরিবেশন করেন, যেখানে বিভিন্ন ইস্যুতে ছোট্ট অথচ তীক্ষ্ম পর্যবেক্ষণ থাকে, মোক্ষম কিছু পাঞ্চ লাইনসহ। মূল অনুষ্ঠানে অতিথিদের রাজনৈতিক বিতর্ক এমন আহামরি কিছু নয়, কিন্তু মার এর শুরুর মুখরা আর শেষের লহরা রীতিমতো উপভোগ্য।

তবে মার্কিনি ধারা অনুযায়ীই হয়তো, মার বেশ খানিকটা ভালগার। তবে তার উপস্থাপনার গুণে সেই অমার্জিত কৌতুকগুলিও হাসিয়ে মারে (অন্তত আমাকে)।

ইউটিউবে নিউ রুলস এর অনেকগুলি পর্ব পাওয়া যাবে। আমি গত তিন তারিখে প্রচারিত রিয়্যাল টাইমের শুরু ও শেষের অংশ (নিউ রুলস) তুলে দিচ্ছি সচলের পাঠকদের জন্যে। রসাস্বাদনের জন্যে রিপাবলিকান ও ডেমোক্র্যাটদের সাম্প্রতিক নির্বাচনী প্রচারণা সম্পর্কে সামান্য ধারণা থাকলেই চলবে।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের অভ্যন্তরীণ রাজনীতি নিয়ে আমার আগ্রহ খুব একটা নেই, তবে কমেডি নিয়ে আছে। তাই ভোটের আগ পর্যন্ত আরো কিছু হাসির খোরাক সচলদের সাথে শেয়ার করতে চাই।





No comments:

Post a Comment

রয়েসয়েব্লগে মন্তব্য রেখে যাবার জন্যে ধন্যবাদ। আপনার মন্তব্য মডারেশন প্রক্রিয়ার ভেতর দিয়ে যাবে। এর পীড়া আপনার সাথে আমিও ভাগ করে নিলাম।