Monday, October 22, 2007

নিজ্ঞাপনঃ বিজ্ঞাপন শিল্পে সন্ত্রাস

উদাহরণ দিয়ে শুরু করি। মনে করুন, বিজ্ঞাপন দেখতে বসেছেন নাটক ফেলে।

প্রবাসী ছেলে ফোন করেছে মা-কে। ধরা গলায় বলছে, মা, মাগো!

মা মুখে আঁচল চেপে ফোঁপাচ্ছেন, খোকা!

ছেলে বলছে, মা গো, কতদিন হয়ে গেলো, বেগুন দিয়ে মাগুর মাছের ঝোল খাই না মা!

মায়ের দুঃখে টেলিফোনের লাইন কেটে যায় আপনাআপনি।

পরের দৃশ্যে দেখা যাবে, মা কোমরে শাড়ি পেঁচিয়ে বেগুনওয়ালার সাথে ঝগড়া করছেন, কেজি বারো টাকা, ফাইজলামি পাইসস? বেগুন কি তোর পেটেন্ট করা? আট টাকায় দিবি না ড়্যাব ডাকুম?

মাগুরওয়ালাও পরাজিত হবে মায়ের কাছে। গম্ভীর কয়েকটা মৃত মাগুর মাছ পরিবেশবান্ধব ব্যাগে সহবন্দী বেগুনদের সাথে একসাথে পাতে চড়বে। রান্নার পর সেই খাবার বয়ামে ভরে মা নিয়ে যাবেন সিএইচএল কুরিয়ার এক্সপ্রেস সার্ভিসের কাছে।

পরদিনই খোকার কাছে বয়াম পৌঁছে দেবে সিএইচএলের স্মিতমুখ কর্মী। খোকা বয়াম খুলে বাটিতে ঢেলে সেই ঝোল দিয়ে গরম ভাত খাবে।

বেজে উঠবে গান,

আর নেই কোন মোশকেল,
পাশে আছে সিএইচএল।
টিটিটিং!

বুঝতেই পারছেন এমন বিজ্ঞাপন বানালে সিএইচএলের লোকজন আপনাকে জুতিয়ে বার করে দেবে।

এগুলি হচ্ছে নিজ্ঞাপন। বানিয়ে সিএইচএলে একটা সিডিতে করে পাঠিয়ে দিন। বলুন এ ধরনের আরো নিজ্ঞাপন বানিয়ে আপনি নেটে তুলে দিতে চান। আপনাকে বিরত রাখার জন্য চাইলে সিএইচএল একটা সমঝোতায় আসতে পারে।

অবশ্যই আপনার পরিচিত খাতিরের কোন "সাধারণ" লোক থাকতে হবে। নাহলে সিএইচএল এর হাতে প্যাঁদানি খেয়ে মরবেন। চান্দাবাজির আর জায়গা পান না?


[]

No comments:

Post a Comment

রয়েসয়েব্লগে মন্তব্য রেখে যাবার জন্যে ধন্যবাদ। আপনার মন্তব্য মডারেশন প্রক্রিয়ার ভেতর দিয়ে যাবে। এর পীড়া আপনার সাথে আমিও ভাগ করে নিলাম।