Friday, October 19, 2007

প্রবাসে দৈবের বশে ০১০

রাতে ঘুমানোর সময় কিভাবে যেন একটা বাংলাদেশ সুট করে ঢুকে পড়ে আমার সিনথেটিক লেপের ভেতরে। আপত্তি করি না।

ভোরবেলা অ্যালার্মের শব্দে জেগে উঠি আমি, জেগে ওঠে বাংলাদেশও। হি হি শীতে কাঁপতে কাঁপতে হীটার ছাড়ি, বাংলাদেশ মিলিয়ে যায় বাইরের অন্ধকারে।

এখন শরতের শেষ, হু হু পাহাড়ি বাতাসে গাছের পাতাগুলি ছিঁড়ে খসে পড়তে থাকে পথের ওপর, আমি শুনতে পাই একটা বাংলাদেশ আমার চলার সাথে তাল মিলিয়ে হাঁটছে সেই পাতাগুলির ওপর।

কাসেলের আকাশে রোদ ক্ষণস্থায়ী, কিন্তু যখনই রোদ ওঠে, তখনই আমার ছায়ায় গুটিসুটি এসে জমা হয় আরেকটা বাংলাদেশ।

ট্রামে বাসে হাঁটা পথে একের পর এক বাংলাদেশ এসে ঘিরে ধরে আমাকে, তারা নিঃশব্দে হাঁটে আমার পাশে, হয়তো তাকায় আড়চোখে।

মাঝে মাঝে হাতের উল্টোপিঠে আর শার্টের হাতায় কয়েকটা বাংলাদেশকে মুছে ফেলি। আরো কয়েকটা বাংলাদেশ নির্বিকার এসে জমা হয়।


[]

No comments:

Post a Comment

রয়েসয়েব্লগে মন্তব্য রেখে যাবার জন্যে ধন্যবাদ। আপনার মন্তব্য মডারেশন প্রক্রিয়ার ভেতর দিয়ে যাবে। এর পীড়া আপনার সাথে আমিও ভাগ করে নিলাম।