Saturday, June 16, 2007

বইপাগলঃ এক জেনারেলের নীরব সাক্ষ্য



প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, সামহোয়্যার ইন এ বইপাগল নিক নিয়ে কেউ একজন ফ্লাডিং করে যাচ্ছে। আমার বইপাগল সিরিজ এর সাথে এর কোন সম্পর্ক নেই, এবং আমি এভাবে আমার সিরিজের নাম ছিনতাই হয়ে যাওয়ায় ক্ষুব্ধ। ওর উপর আল্লার গজব পড়ুক, লা'নত পড়ুক, ওর বাড়ির কড়িকাঠ খসে পড়ুক।

যাই হোক।

গতকাল রাতে, একটু দেরিতে হলেও টেনে পড়ে শেষ করলাম মেজর জেনারেল (অবঃ) মইনুল হোসেন চৌধুরীর এক জেনারেলের নীরব সাক্ষ্য: স্বাধীনতার প্রথম দশক। সামরিক বাহিনীর অফিসাররা সাধারণত পয়েন্ট ধরে লিখতে অভ্যস্ত, এতেই স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করেন --- এটা আমার পর্যবেক্ষণলব্ধ ধারণা। মইনুল হোসেন চৌধুরীর বইটির পরিসর খুব বেশি নয়, কিন্তু ঘটনা প্রচুর, তাই খুব একটা খারাপ লাগেনি এমন পয়েন্টানুগ লেখা।

মইনুল হোসেন চৌধুরীর বিভিন্ন লেখা ও সাক্ষাৎকার এর মাধ্যমে তাঁকে একজন অত্যন্ত দৃঢ়চেতা, সাহসী ও দূরদর্শী মানুষ বলে আমার মনে হয়েছে। তাঁর বইটি পড়ে তাঁর ওপর আমার শ্রদ্ধা অটুট রয়েছে। তিনি নিজেকে অতিমানব বলে জাহির করেননি, সবসময় তাঁর সহযোদ্ধাদের অবদানের কথা উচ্চকণ্ঠে বলেছেন। মুক্তিযুদ্ধের প্রসঙ্গে তিনি কিছু সাক্ষাৎকার দিয়েছিলেন বিভিন্ন সময়ে, তাঁর কথা শুনে আমার মনে হয়েছে, এমন একজন অধিনায়কের হুকুমে প্রাণ বিসর্জন দেয়ার মতো মানুষের অভাব হবে না দেশে।

বইতে তিনি মুক্তিযুদ্ধ পরবর্তী সময়ে মুক্তিযোদ্ধা অফিসারদের সংকট নিয়ে কথা বলেছেন, জানিয়েছেন কিভাবে পাকিস্তানফেরত অমুক্তিযোদ্ধা অফিসাররা সামরিক বাহিনীর ভেতরে বিরাজমান অস্থিরতা বাড়িয়ে দিয়ে নিজেরা ফায়দা লুটেছেন দেশের সাম্যাবস্থার বিনিময়ে। সহমুক্তিযোদ্ধা কিছু অফিসারের প্রসঙ্গেও তাঁর ক্ষোভ প্রকাশ পেয়েছে। পেশাদারিত্বকে বিসর্জন দিয়ে নিজের স্বার্থ চরিতার্থের অনেকগুলো ঘটনা তিনি বর্ণনা করেছেন।

বইটা পড়ে আমি বিষণ্ন বোধ করেছি। একটাই কথা মনে হয়েছে, মুক্তিযুদ্ধ আর পরবর্তী এক দশকে আমরা অনেক দৃঢ়চেতা, সাহসী মানুষ হারিয়েছি, যাঁরা যোগ্য রাজনৈতিক নেতৃত্বের অধীনে থাকলে সেনাবাহিনী আর কোন সংশয় সৃষ্টি করতো না সাধারণ মানুষের মনে। কোন স্বৈরাচারী কুকুরের হাতে দেশ এভাবে ধর্ষিত হতো না বছরের পর বছর।

সশ্রদ্ধ ধন্যবাদ জানাই লেখক জেনারেলকে।


No comments:

Post a Comment

রয়েসয়েব্লগে মন্তব্য রেখে যাবার জন্যে ধন্যবাদ। আপনার মন্তব্য মডারেশন প্রক্রিয়ার ভেতর দিয়ে যাবে। এর পীড়া আপনার সাথে আমিও ভাগ করে নিলাম।