Friday, May 25, 2007

পাকি শান্তিরক্ষীদের কীর্তি


এ নিয়ে জাতিসংঘ তদন্ত করেছে, কিন্তু পাকিস্তানের পক্ষ থেকে নানা বাধা আর হুমকিধামকির সম্মুখীন হয়ে তদন্তরিপোর্ট চিবিয়ে খেয়ে ফেলেছে তারা।

২০০৪-২০০৫ এ উত্তরপূর্ব কঙ্গোর ইতুরি অঞ্চলে সোনার বিনিময়ে বিদ্রোহীদের হাতে অস্ত্র তুলে দিয়েছে "শান্তিরক্ষী" পাকি সেনারা, এ অভিযোগ ২০০৬ সালে জোরেসোরে ওঠার পরই তদন্তে নামে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ।

এখন নাকি সোনার বিনিময়ে অস্ত্র লেনদেন, আর তদন্তে বাধাদান, এ দুই ঘটনা নিয়েই তদন্ত চলছে দুই ধারায়, জানিয়েছেন মুখপাত্রী মিশেল মন্তাস।

বিবিসি উদ্ধৃতি দিয়েছে এভারিস্তা আনজাসুবু নামধারী এক ব্যবসায়ীর, যিনি ব্যক্তিগতভাবে পাকি সেনা এবং দুজন কুখ্যাত বিদ্রোহী নেতার মধ্যে এ লেনদেনের বিষয়ে অবগত ছিলেন।

মেজর জেনারেল ওয়াহিদ আরশাদ, পাকি সেনাবাহিনীর মুখপাত্র কিন্তু নিজের বাহিনীর ভেতরে তদন্তের ব্যাপারে কিছু বলেনি। সে বলেছে, আরো তো অনেকেই আছে কঙ্গোতে, শান্তিরক্ষী হিসেবে। কেন বিবিসি পাকি সেনামণিদেরই বেছে বেছে অভিযুক্ত করলো?



হায়রে পাকি, সারা পৃথিবী অবাক তাকিয়ে রয়
লাত্থিগুতা খেয়ে হয়রান, তবু মানুষ হবার নয়।


1 comment:

  1. দারুন লিখেছেন।

    ReplyDelete

রয়েসয়েব্লগে মন্তব্য রেখে যাবার জন্যে ধন্যবাদ। আপনার মন্তব্য মডারেশন প্রক্রিয়ার ভেতর দিয়ে যাবে। এর পীড়া আপনার সাথে আমিও ভাগ করে নিলাম।