Friday, March 02, 2007

বইপাগলঃ ফ্রীকোনমিক্স



বাংলায় কিভাবে বলা যায়? অনর্থশাস্ত্র?

স্টীভেন লেভিট একজন অর্থনীতিবিদ, বয়সে তরুণ৷ তেমনি আরেকজন তরুণ সাংবাদিক স্টিফেন ডাবনার৷ লেভিটের গুণ হচ্ছে, তিনি সবকিছুর ছায়ালো দিকটা দেখার আর দেখানোর চেষ্টা করেন৷ আর ডাবনারের গুণ হচ্ছে লেখনীতে৷ কাজেই একজনের ভাবনা আরেকজনের কলম বেয়ে শেষমেশ বার হলো এই ফ্রীকোনমিক্স৷

অর্থনীতি বড়সড় ব্যাপার নিয়ে মাথা ঘামায়, তবে তার সামর্থ্য আছে ক্ষুদ্রাতিক্ষুদ্র ব্যাপারস্যাপার নিয়েও অনেক কিছু বলার৷ লেভিট সে কাজটাতেই মন দিয়েছেন৷ আপাতদৃষ্টিতে এলোমেলো কিছু আর্টিকেলকে নিপুণভাবে জুড়ে দেয়া হয়েছে বইটাতে৷ তবে এগুলোর পেছনে লেভিটের স্বতসিদ্ধগুলো হচ্ছে এমন,

1. বর্তমান পৃথিবীতে মানুষের জীবনটাই দাঁড়িয়ে আছে ইনসেনটিভ (কী বলবো বাংলায়, ফুসলি? উত্‍সাহ? প্রলোভন? উঁহু, মূলা!) এর ওপর৷ মূলার আকৃতি ও প্রকৃতির ওপর নির্ভর করে পালটাচ্ছে মানুষের আচরণ৷

2. কনভেনশনাল ওয়াইজডম বা প্রচলিত জ্ঞান বেশিরভাগক্ষেত্রেই সঠিক নয়৷

3. যেকোন বড়সড় নাটুকে ঘটনার পেছনে, অনেক পেছনে কাজ করে মিহি সব কারণ, যা বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই বোধের অগোচরে থাকে৷

4. বিশেষজ্ঞরা তাঁদের আস্তিনের আড়ালে রাখা তথ্যগুলোকে নিজের সুবিধামতো কাজে লাগান৷

5. কী মাপতে হবে আর কিভাবে মাপতে হবে তা জানা থাকলে এই জটিল দুনিয়াটা আরেকটু সহজ লাগে৷


এরপর লেভিট বকে গেছেন ডাবনারের কলমে৷ স্কুল শিক্ষক আর সুমোকুস্তিগীরদের মধ্যে মিলটা যে আসলে চোট্টামির ক্ষেত্রে, সেটা নিয়ে এক দফা৷ জমির দালাল আর কু ক্লুক্স ক্ল্যান যে আসলে অনেকটা একই কিসিমের মাল, সেটাও বুঝিয়েছেন বেশ ফর্সা করে৷ নেশার জগতের চুনোপুঁটি আর রাঘববোয়ালদের নিয়ে রয়েছে বেশ চমকালো একটা আর্টিকেল৷ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে অপরাধের ক্রমবিস্তারের পর হঠাত্‍ তা কমে যাওয়ার কারণ বিশ্লেষণ করে লেভিট বার করেছেন এক দারুণ তথ্য, গর্ভপাত বৈধ করে আদালতের জারি করা আইনই নাকি আসল হিরো, পুলিশ বা পলিটিশিয়ানরা নয়৷ আর শেষমেশ লেভিট দেখিয়েছেন ভালো অভিভাবক কাকে বলে, একেবারে পরিসংখ্যান হাঁটকে৷ বইটা অবশ্য শেষ হয়েছে একটা আবছা আর্টিকেল দিয়ে, তবে তা-ও ভাবনার বিরাট খোরাক, সংস্কৃতির সংখ্যায়ন নিয়ে৷


বইটা পড়ে ভালো লাগলো৷ আরো একটা নুড়ি কুড়িয়ে নিলাম সৈকত থেকে৷


No comments:

Post a Comment

রয়েসয়েব্লগে মন্তব্য রেখে যাবার জন্যে ধন্যবাদ। আপনার মন্তব্য মডারেশন প্রক্রিয়ার ভেতর দিয়ে যাবে। এর পীড়া আপনার সাথে আমিও ভাগ করে নিলাম।