Tuesday, November 07, 2006

ক্লান্তি আমার ক্ষমা করো প্রভু ...


আমার একটা দুঃখ দীর্ঘদিনের। আমি কোন প্রতিযোগিতায় প্রথম হতে পারি না, তৃতীয় পুরস্কার পাই। স্কুল পর্যায় থেকে শুরু করে বিশ্ববিদ্যালয়, ঘরোয়া থেকে জাতীয়, সব পর্যায়ে তৃতীয় স্থান অধিকার করার নিদারুণ অভিজ্ঞতা আমার আছে। তাই আমি আজ বুঝতে পারি আমাদের মর্মবেদনা।

টিআই বিদেশী প্রতিষ্ঠান। সাধারণত আমরা বিদেশীদের দেয়া সার্টিফিকেটকে খুব গুরুত্ব দেই। হইচই করে দেখাই। আমি আন্তর্জাতিক পরিমন্ডলে কোন পুরস্কার পাইনি, পেলে নিশ্চয়ই চেনা-আধচেনা-চিনিচিনিসন্দেহজনক এমন সবাইকে গায়ে পড়েই সেই সুখবর শুনিয়ে আসবো শিব্রাম চকরবরতির মত। কিন্তু টিআইয়ের দেয়া সার্টিফিকেটে আমাদের প্রতিক্রিয়া রাজনৈতিকভাবে মেরুকৃত। সাধারণত এতে সরকারী দল অপ্রসন্ন প্রতিক্রিয়া জানায়, এবং টিআইকেও সাথে নাকচ করে দিতে চায়। আর বিরোধী দল এতে দারুণ উল্লসিত হয়, যে দ্যাখেন ভাই, খালি আমরা না, বিদেশীরাও অগো চুর কয়। তবে টিআই আবার পুরস্কার বিতরণ শুরু করেছিলো ২০০১ সালে এসে, তাই দুই দলের কপালেই এই তিলক জুটেছে।

তবে চারদলীয় জোট শেষ বছরে এসে একটু হোঁচট খেয়েছে। ফার্স্ট প্রাইজ ফসকে গেছে তাদের হাত থেকে। এবার প্রথম হয়েছে গত বছরের যুগ্মভাবে প্রথম হাইতি আর আরো কে যেন। গতবছর ছড়া লিখেছিলাম

তবু যদি তোরা প্রথম আসনে একক দখল পাইতি
উড়ে এসে জুড়ে বসে গেলো ঘাড়ে কোথাকার কোন হাইতি।


এ বছর দেখা গেলো হাইতি তার স্থান ধরে রাখতে পেরেছে, কিন্তু বাংলাদেশ গোঁত্তা খেয়ে পিছিয়ে পড়েছে। এটা কি দুর্নীতি কম করার ফল, নাকি হাইতিতে বাংলাদেশের চেয়ে দুর্নীতির রন্ধ্রায়ন বেশি ঘটেছে, তা আন্দাজ করা মুশকিল। তবে যেভাবে দেশে আয়ের সাথে ব্যয়ের গরমিল দেখা যায়, কর্তাদের স্ত্রীকন্যাদের যে গাড়ি থেকে নেমে যে গহনার দোকানে ঢুকে যে পরিমাণ কেনাকাটা করতে দেখা যায়, তাতে করে হতাশ হবার কিছু নেই।

তাই বলি, ক্লান্তি আমার ক্ষমা করো প্রভু, পথে যদি পিছিয়ে পড়ি কভু। আসছে বছর আরো দুর্নীতি করবো। গরীবের ল্যাঙট খুলে ছুঁড়ে দেবো আগুনে। সে কেঁদে উঠলে সান্ত্বনা দেবো, কাঁদিস না রে কাঁদিস না রে মুছে ফ্যাল চোখের জল ... ল্যাংটা হয়েছিস তো কি হয়েছে, দাঁত মাজার ছাই তো পেলি! আর গরীবের মহৌষধ ক্ষুদ্রঋণ তো আছেই তোদের জন্য।


হাইতি, আইতাছি খাড়া!


No comments:

Post a Comment

রয়েসয়েব্লগে মন্তব্য রেখে যাবার জন্যে ধন্যবাদ। আপনার মন্তব্য মডারেশন প্রক্রিয়ার ভেতর দিয়ে যাবে। এর পীড়া আপনার সাথে আমিও ভাগ করে নিলাম।